আলোচক

দাওয়াহ কার্যক্রম


পরকালীন মুক্তির আবশ্যিক পূর্বশর্ত হ’ল নির্ভেজাল তাওহীদী আক্বীদা পোষণ করা এবং আল্লাহ প্রেরিত সর্বশেষ ‘অহি’ পবিত্র কুরআন ও ছহীহ হাদীছ অনুযায়ী দুনিয়াবী জীবন পরিচালনা করা। আর পবিত্র কুরআন ও ছহীহ হাদীছ অনুযায়ী জীবন গড়ার আন্দোলনই হ’ল ‘আহলেহাদীছ আন্দোলন’। এই আন্দোলনে জান, মাল, সময় ও শ্রমের কুরবানী দেওয়াকেই আমরা ইহকালীন মঙ্গল ও পরকালীন মুক্তির অসীলা বলে মনে করি। ‘আল্লাহ পাক মুমিনের জান ও মাল খরিদ করে নিয়েছেন জান্নাতের বিনিময়ে’ (তওবা ১১১)। অতএব আল্লাহর দেওয়া জান ও মাল আল্লাহর পথেই ব্যয় করতে হবে, আল্লাহ বিরোধী পথে নয়। রাসূলুল্লাহ (ছাঃ) এরশাদ করেন, ‘তোমরা জিহাদ কর মুশরিকদের বিরুদ্ধে তোমাদের মাল দ্বারা, জান দ্বারা ও যবান দ্বারা’ (আবুদাঊদ, মিশকাত ‘জিহাদ’ অধ্যায়, হা/৩৮২১)। 
বাংলাদেশে নিম্নোক্ত চারটি স্তরে এই আন্দোলন তার দাওয়াতী কার্যক্রম অব্যাহত রেখেছে। যেমন-

১. আহলেহাদীছ আন্দোলন বাংলাদেশ

১৯৯৪ সালের ২৩ শে সেপ্টেম্বর প্রতিষ্ঠালাভের পর অদ্যাবধি এ সংগঠন বাংলাদেশের আনাচে-কানাচে পবিত্র কুরআন ও ছহীহ হাদীছের দাওয়াত প্রচার ও প্রসারে যথাসাধ্য প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। বর্তমানে ৩৯টি যেলায় এ সংগঠনের শাখা স্থাপিত হয়েছে এবং বাকী যেলাগুলিতেও যথাশীঘ্র শাখা প্রতিষ্ঠার মাধ্যমে সারাদেশে বলিষ্ঠভাবে হক্বের দাওয়াত ছড়িয়ে দেয়ার প্রচেষ্টা অব্যাহত রয়েছে। এই স্তরের বয়স সীমা ৩৫ বছর থেকে আমৃত্যু।

২. বাংলাদেশ আহলেহাদীছ যুবসংঘ

১৯৭৮ সালে ২২শে ফেব্রুয়ারী তৎকালীন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র আমীরে জামা‘আত প্রফেসর ড. মুহাম্মাদ আসাদুল্লাহ আল-গালিব এই সংগঠনটি প্রতিষ্ঠা করেন। বাংলার পথভোলা যুবসমাজ ও ছাত্রসমাজকে অহির বিধানের ছায়াতলে একত্রিত করা এবং তাদের মাঝে বিশুদ্ধ ইসলামী চেতনা ছড়িয়ে দেয়ার মাধ্যমে মানহাজুন নবুয়তের আলোকে আলোকিত একটি অহিভিত্তিক সমাজব্যবস্থা গড়ে তোলার প্রেরণাই ছিল এর পিছনে চালিকাশক্তি। বর্তমানে দেশের বিভিন্ন যেলায় এবং কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয়ে এর কার্যক্রম অব্যাহত রয়েছে। এই স্তরের বয়সসীমা ১৬ হ’তে ৩৫ বছর।

৩. সোনামণি সংগঠন

১৯৯৪ সালের ২৩ শে সেপ্টেম্বর জাতীয়ভিত্তিক এই শিশু-কিশোর সংগঠনটি প্রতিষ্ঠা লাভ করে। শৈশব থেকেই ইসলামের সুমহান আদর্শে বেড়ে উঠা এবং বিজাতীয় সাংস্কৃতিক আগ্রাসন থেকে তাদেরকে রক্ষা করার ব্রত নিয়েই এ সংগঠনের জন্ম। ইসলামের সুমহান ইতিহাস-ঐতিহ্য ও বুনিয়াদী শিক্ষাকে ছোট্ট সোনামণিদের মন ও মননে গেঁথে দেয়ার মানসে এ সংগঠন নানামুখী কর্মসূচী নিয়ে এগিয়ে চলেছে।

৪. আহলেহাদীছ মহিলা সংস্থা

১৯৮১ সালে ৭ই জুন মহিলাদের মধ্যে দ্বীনের সঠিক দাওয়াত প্রসারের লক্ষ্যে এ সংগঠন প্রতিষ্ঠা লাভ করে। সেই থেকে স্বল্প পরিসরে হ’লেও এ সংগঠনটির কার্যক্রম চলমান রয়েছে।